বড়লেখার আহবাব চৌধুরী ঢাকায় ইয়াবাসহ গ্রেফতার: থানায় প্রকৃত নাম গোপন

মঙ্গলবার, ২৮ জুলাই ২০২০ | ২:২৪ অপরাহ্ণ

বড়লেখার আহবাব চৌধুরী ঢাকায় ইয়াবাসহ গ্রেফতার: থানায় প্রকৃত নাম গোপন

ঢাকার যাত্রাবাড়ী থানা পুলিশ ১০০ পিস ইয়াবাসহ মৌলভীবাজারের বড়লেখার আহারুল আলম ওরফে আহবাবুল আলম (৪৫)কে গ্রেপ্তার করেছে।সে বড়লেখা পৌরসভার মহবন্দ গ্রামের মৃত সারোয়ার আলম ওরফে সরোয়ারুল আলম চৌধুরীর পুত্র। গ্রেপ্তারের পর নিজের প্রকৃত নাম গোপন রাখেন। যদিও তিনি বড়লেখায় আহবাব আহমদ চৌধুরী নামে পরিচিত।

গত (২৩ জুলাই) যাত্রাবাড়ী থানার পুলিশ ইয়াবাসহ তাকে গ্রেপ্তার করে। এ ঘটনায় পুলিশ বাদী হয়ে তার বিরুদ্ধে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে মামলা দিয়ে কারাগারে পাঠিয়েছে। যাত্রাবাড়ী থানার মামলা নম্বর- ৯৫।



ইয়াবাসহ গ্রেপ্তার আহারুল আলম ওরফে আহবাবুল আলম সম্পর্কে জানতে বড়লেখা থানা পুলিশের কাছে অনুসন্ধানপত্র পাঠিয়েছে যাত্রাবাড়ী থানা পুলিশ। ২৬ জুলাই বড়লেখা থানা পুলিশের কাছে অনুসন্ধানপত্র আসে।

 

সূত্র জানিয়েছে, এলাকায় আহবাব চৌধুরী নামে পরিচিত থাকলেও তিনি ঢাকায় ইয়াবাসহ গ্রেপ্তারের পর নিজের প্রকৃত নাম গোপন রাখেন। অনুসন্ধানপত্র আসায় বিষয়টি জানাজানি হয়।

স্থানীয় বিভিন্ন সূত্রে জানা গেছে, আহবাব মাদকাসক্ত ছিলেন। মাদক নিরাময় কেন্দ্রে চিকিৎসা করিয়েও তাকে ভালো করা যায়নি। এলাকার মানুষদের সাথে প্রতারণাসহ বিভিন্ন অভিযোগ রয়েছে তার বিরুদ্ধে।

গত (১৪ জুলাই) বড়লেখা থানায় আহবাব আহমদ চৌধুরীর বিরুদ্ধে বড়লেখা পৌর মেয়র ও আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আবুল ইমাম কামরান চৌধুরী ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে একটি মামলা দায়ের করেন।

 

আহবাব গ্রেপ্তারের বিষয়টি নিশ্চত করে বড়লেখা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. ইয়াছিনুল হক সোমবার (২৭ জুলাই) রাতে বলেন, ‘যাত্রাবাড়ী থানা থেকে ২৬ জুলাই তার সম্পর্কে জানতে অনুসন্ধানপত্র এসেছে। বড়লেখায় সে আহবাব চৌধুরী নামে পরিচিত। তার বিরুদ্ধে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা আছে। এ মামলায় শোন অ্যারেস্ট দেখানো হবে।

Development by: webnewsdesign.com