রাজশাহীতে ফুঁসে উঠছে পদ্মা

সোমবার, ২৯ জুন ২০২০ | ৫:৩৩ অপরাহ্ণ

রাজশাহীতে ফুঁসে উঠছে পদ্মা

উজান থেকে নেমে আসা ঢলে রাজশাহীতে ফুঁসে উঠছে পদ্মা। নদীতে পানি বাড়ছে প্রতিদিনই। নদীতে এরমধ্যে বয়ে যাচ্ছে দখিনা স্রোত। এভাবে পানি বাড়তে থাকলে কয়েকদিন পরেই পদ্মার পানি বিপদসীমা ছুঁই ছুঁই করবে বলেও আশঙ্কা করা হচ্ছে। ফলে মধ্য চর ও নদীতীরে বসবাসরতরা ক্রমেই বাড়ছে উদ্বিগ্ন । পানি উন্নয়ন বোর্ডের গেজ রিডার এনামুল হক বলেন, গত কয়েকদিন ধরেই রাজশাহীতে পদ্মার পানি বাড়ছে। এভাবে বাড়তে থাকলে আর কয়েকদিনের মধ্যেই শহর রা বাঁধ স্পর্শ করবে।

 



সোমবার বার দুপুরে রাজশাহীতে পদ্মানদীর পানির উচ্চতা মাপা হয়েছে ১০ দশমিক ৭৬ সেন্টিমিটার। আর রাজশাহীতে পদ্মার বিপদসীমা হচ্ছে ১৮ দশমিক ৫০ সেন্টিমিটার। গত বছরের ১৭ সেপ্টেম্বর রাজশাহীতে পদ্মার পানির সর্বোচ্চ উচ্চতা ছিল ১৭ দশমিক ৩৪ সেন্টিমিটার। ছুঁই ছুঁই করলেও এরপর আর পদ্মার পানি বাড়েনি। ১৮ সেপ্টেম্বর থেকে পানি কমতে শুরু করে। রাজশাহী পানি উন্নয়ন বোর্ডের (পাউবো) গেজ রিডার এনামুল হক বলেন, সন্ধ্যা ৬টায় পদ্মা নদীতে পানির উচ্চতা মাপা হয়েছিল ১০ দশমিক ৪৮ সেন্টিমিটার। মঙ্গলবার সন্ধ্যা ৬টায় তা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১০ দশমিক ৭৬ সেন্টিমিটারে। ফলে ২৪ ঘণ্টায় রাজশাহীর পদ্মায় পানি বেড়েছে ২৮ সেন্টিমিটার। এভাবে প্রতিদিনই পানি বাড়ছে।

 

তবে অতীতের পরিসংখ্যান টেনে রাজশাহী পানি উন্নয়ন বোর্ডের (পাউবো) গেজ রিডার এনামুল হক আরো বলেন, এ নিয়ে আতঙ্কের কিছু নেই। ২০১৬ সালের ২৮ আগস্ট রাজশাহীতে পদ্মার পানির প্রবাহ উঠেছিল সর্বোচ্চ ১৮ দশমিক ৪৬ সেন্টিমিটার। এরপর আর বাড়েনি। বরং পরদিন ২৯ আগস্ট থেকে পদ্মার পানি আবারও ধীরে ধীরে কমতে শুরু করে।

 

এনামুল হক আরো বলেন, গেল ১৭ বছরে রাজশাহীতে পদ্মা নদীর পানি বিপদসীমা ১৮ দশমিক ৫০ অতিক্রম করেছে মাত্র দুই বার। এরমধ্যে ২০০৪ থেকে ২০১২ সাল পর্যন্ত টানা আট বছর রাজশাহীতে পদ্মার পানি বিপদসীমা অতিক্রম করেনি। কেবল ২০০৩ সালের ১৯ সেপ্টেম্বর রাজশাহীতে পদ্মার সর্বোচ্চ উচ্চতা ছিল ১৮ দশমিক ৮৫ সেন্টিমিটার। এরপর ২০১৩ সালের ৭ সেপ্টেম্বর রাজশাহীতে পদ্মা বিপদসীমা অতিক্রম করেছিল। ওই বছর পদ্মার উচ্চতা দাঁড়িয়েছিল ১৮ দশমিক ৭০ সেন্টিমিটার। এরপর আর এই রেকর্ড ভাঙেনি বলেও উল্লেখ করেন পাউবোর এই গেজ রিডার।

Development by: webnewsdesign.com