ভোলার লালমোহনে ধর্ষণের অভিযোগে থানায় মামলা।

সোমবার, ০৮ জুন ২০২০ | ৯:৪২ অপরাহ্ণ

ভোলার লালমোহনে ধর্ষণের অভিযোগে থানায় মামলা।

ভোলার লালমোহনের কালমায় ৫সন্তানের জননী এক বিধবা (৫০) কে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে হুমায়ুন কবির নিরব নামের ভোলা পানি উন্নয়ন বোর্ডের কার্য সহকারীর বিরুদ্ধে।

গত ৩০ মে (শনিবার) সকালে উপজেলার কালমা ৭নং ওয়ার্ড বালুরচর এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। আজ সোমবার (৮ জুন) ওই বিধবা বাদি হয়ে লালমোহন থানায় মামলা দায়ের করেছেন। অভিযুক্ত হুমায়ুন কবির একই এলাকার মো: ছায়েদুল হকের ছেলে।



মামলা সূত্রে জানা যায়, উপজেলার কালমা ৭নং ওয়ার্ড বালুরচর গ্রামের নুরুল হক ফরাজী বাড়ির মৃত আনিচল হক ফরাজীর ৫ সন্তান নিয়ে জীবনযাপন করছেন বিধবা স্ত্রী। ঈদের ছুটিতে সন্তানের বাড়িতে বেড়াতে এসে আবার যার যার কর্মে ফিরে যায়।

এতে করে খালী ঘরে একাই থাকতেন ওই বিধবা। গত ৩০মে (শনিবার) ঘরে ভাত না থাকায় পার্শ্ববতী মো: ছায়েদুল হক মাষ্টারের বাসায় খাবার আনতে যান তিনি। এসময় ওই মাষ্টারের ঘরে তার ছেলে হুমায়ুন কবির নিরব ছাড়া অন্য কেউ না থাকার সুবাধে তাকে জোরপূর্বক ধর্ষণ করে এবং এ ঘটনা কাউকে না বলার জন্য ভয়ভীতি প্রদর্শণ করে বাড়ি পাঠিয়ে দেয়।

পরে বাড়ির অন্যান্য লোকজনদের কে এ ঘটনা জানালে তারা বিধবাকে লালমোহন হাসপাতালে পাঠায় এবং তার উন্নত চিকিৎসার জন্য তাকে ভোলা প্রেরণ করেন কর্তব্যরত চিকিৎসক। এদিকে এ ঘটনা ধামাচাপা দিতে স্থানীয় কিছু প্রভাবশালীমহল উঠেপড়ে লেগেছে বলে জানা গেছে।

জানা যায়, হুমায়ুন কবির নিরব প্রায় বছরখানেক আগে তার স্ত্রীকে তালাক দেয়। ওই ঘরে তাদের একটি কন্যা সন্তানও রয়েছে। এদিকে অভিযুক্ত ভোলা পানি উন্নয়ন বোর্ডের কার্য সহকারী হুমায়ুন কবির নিরবের ব্যবহৃত মুঠোফোনে একাধিকবার কল দিয়েও তাকে পাওয়া যায়নি।

লালমোহন থানা অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মীর খায়রুল কবীর বলেন, এ ঘটনায় মামলা দায়ের হয়েছে। মামলা নং-১১, তারিখ- ০৮জুন ২০২০, তদন্ত সাপেক্ষে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

Development by: webnewsdesign.com