নেত্রকোনায় এসএসসি পরীক্ষার্থীকে তুলে নিয়ে ধর্ষণ

বুধবার, ০৫ ফেব্রুয়ারি ২০২০ | ৮:৩৯ অপরাহ্ণ

নেত্রকোনায় এসএসসি পরীক্ষার্থীকে তুলে নিয়ে ধর্ষণ

নেত্রকোনার পূর্বধলায় ধষর্ণের অভিযোগে প্রতিবেশী শিমুল আলমগীর (২৪) নামে এক যুবককে আটক করেছে পুলিশ। এ ঘটনায় ভুক্তভোগীকে পরীক্ষার জন্য নেত্রকোনা আধুনিক সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়।

ভুক্তভোগী পরিবারের অভিযোগ, প্রতিবেশী শিমুল পূর্ব শত্রুতার জেরে গত ৩১ জানুয়ারি মেয়েটিকে অপহরণ করে
নরসিংদী এনামুল নামের এক বন্ধুর বাসায় নিয়ে যায়। সেখানে জোরপূর্বক বিয়ের কাবিন নামায় স্বাক্ষরও করায়। সেই সাথে ধর্ষণ করে। পরবর্তীতে দুই ফেব্রুয়ারি এনামুল ফোন দিয়ে মেয়ের অভিভাবককে জানালে তারা রাতেই গিয়ে মেয়েকে উদ্ধার করে নিয়ে আসেন। পরবর্তীতে গ্রামের চেয়ারম্যানসহ বিভিন্ন জনের কাছে বিষয়টি জানিয়ে ৪ ফেব্রুয়ারি রাতে পূর্বধলা থানাকে অবহিত করা হয়।

 

 

 

 

 

এ ঘটনায় পুলিশ মেডিকেল পরীক্ষার জন্য ভিকটিমকে প্রথমে পূর্বধলা ও পরে নেত্রকোনা আধুনিক সদর হাসপাতালে প্রেরণ করে। এদিকে, মঙ্গলবার রাতেই পুলিশ অভিযুক্ত শিমুলকে আটক করে। ধর্ষণের শিকার মেয়েটি উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীনে চলতি এসএসসি পরীক্ষায় একটি বিষয়ে অংশগ্রহণ করে।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানায়, পূর্বধলা উপজেলার বোধী গ্রামের ওই শিক্ষার্থী প্রতিবেশী চাঁন মিয়ার ছেলে শিমুল আলমগীরের সাথে প্রেমের সম্পর্ক ছিল। কিন্তু গত ৩১ জানুয়ারি রাতে হঠাৎ মেয়েটি নিখোঁজ হয়। পরবর্তীতে ২ ফেব্রুয়ারি রাতে বাড়িতে ফিরে অভিভাবকদের কাছে প্রতিবেশী আলমগীর তাকে অপহরণের পর ধর্ষণ করেছে বলে অভিযোগ করে।

এ ঘটনা তদন্ত করে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে বলে জানান পূর্বধলা থানার ওসি মো. তাওহিদুর রহমান। ইতোমধ্যেই অভিযুক্তকে আটক করার বিষয়টিও নিশ্চিত করেছেন তিনি।

Development by: webnewsdesign.com