জাইরা ওয়াসিমে সর্বশেষ ইনস্টাগ্রাম পোস্ট নিয়ে শুরু হয়েছে সমালোচনা

বুধবার, ০৫ ফেব্রুয়ারি ২০২০ | ৬:২৬ অপরাহ্ণ

জাইরা ওয়াসিমে সর্বশেষ ইনস্টাগ্রাম পোস্ট নিয়ে শুরু হয়েছে সমালোচনা

মিস্টার পারফেকশনিস্ট বলিউড অভিনেতা আমির খানের সঙ্গে ‘দঙ্গল’ ছবিতে অভিনয় করে মাত করেছিলেন অভিনেত্রী জাইরা ওয়াসিম। তবে এর মধ্য জাইরা নানা বিতর্কে জড়িয়েছেন। বিমানে সহযাত্রীর বিরুদ্ধে খারাপ আচরণের অভিযোগ এবং বলিউড ছাড়ার ঘোষণা দিয়ে সমালোচনার মুখে পড়েন। এবার আবার বিতর্কে জড়ালেন জাইরা। এবার সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে কাশ্মীরের মানুষের ওপর অন্যায় হচ্ছে বলে অভিযোগ তুললেন তিনি। মতপ্রকাশের স্বাধীনতা নিয়ে প্রশ্ন আছে তাঁর।

 

 

 

 

 

টিওআই, এনডিটিভির খবরে বলা হয়েছে, জম্মু–কাশ্মীর থেকে ৩৭০ ধারা উঠিয়ে নেওয়ার পর জাইরা ওয়াসিম টুইটারে ভক্তদের সঙ্গে নিজের মত প্রকাশ করেছিলেন। এবার আবারও জাইরা ওয়াসিম কাশ্মীর বিষয়ে প্রতিক্রিয়া দিয়েছেন। নিজের ইনস্টাগ্রাম অ্যাকাউন্টে পোস্ট শেয়ার করেছেন। যেখানে তিনি কাশ্মীরের পরিস্থিতি নিয়ে নিজের চিন্তা ব্যক্ত করেছেন। পাশাপাশি বর্তমান পরিস্থিতির জন্য সমালোচনা করেছেন জাইরা।

 

 

 

 

 

 

 

 

 

২০ বছরের জাইরা ওয়াসিম নিজের ইনস্টাগ্রামে একটি ছবি শেয়ার করে লিখেছেন, কাশ্মীরে আসলে শান্তি নেই। কাশ্মীর আশা ও হতাশার মধ্যে দোদুল্যমান অবস্থায় রয়েছে। নিরাশা ও দুঃখের মধ্যও উপত্যকায় শান্তি অবস্থান করছে—এমন একটি অসত্য ছবি সবার সামনে তুলে ধরা হচ্ছে। আমরা এমন একটা পৃথিবীতে বসবাস করছি, যেখানে আমাদের জীবন ও ইচ্ছাকে নিয়ন্ত্রণ করা হচ্ছে। আমাদের আওয়াজকে চুপ করানো কেন এত সহজ? আমাদের ব্যক্তিস্বাধীনতার ওপর পর্দা ঢেকে দেওয়া কেন এতটা সহজ? কেন এভাবে বাঁচতে হচ্ছে? সব সিদ্ধান্তকে পছন্দ-অপছন্দ করার অধিকারও কেন আমাদের দেওয়া হয় না? কাশ্মীরের মানুষগুলোকে কেন যখন-তখন নিয়মের বেড়াজালে বেঁধে ফেলা হয়—পোস্টে সে প্রশ্ন তুলেছেন জাইরা।

সরকার আর মানুষের কাছে প্রশ্ন করেছেন জাইরা ওয়াসিম। তাঁর পোস্টটি নিয়ে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে বেশ আলোচনা হয়েছে। অনেকে বলছেন, নতুন করে বিতর্কে জড়িয়েছেন তিনি। অনেকেই তাঁর এমন বক্তব্যের সমালোচনা করেছেন। বলেছেন, এ ধরনের বক্তব্য জাইরার কাছে আসা করা যায় না। আবার অনেকে বলছেন, বিতর্কের জন্ম দেওয়ার জন্যই এ ধরনের কথা লিখেছেন ইনস্টাগ্রামে তিনি।কাশ্মীর নিয়ে পোস্টের সঙ্গে এই ছবিটি যুক্ত করেছেন জাইরা। ছবি: ইনস্টাগ্রামজাইরা ওয়াসিমের শুরুটা হয়েছিল ধামাকা দিয়ে। ২০১৬ সালে মাত্র ১৬ বছর বয়সে আমির খানের সঙ্গে ‘দঙ্গল’ ছবিতে কুস্তিবিদ গীতা প্রগতের চরিত্রে অভিনয় করেন। ৭০ কোটি রুপি খরচ করে বানানো ছবি বক্স অফিসে তোলে প্রায় ২ হাজার ২০০ কোটি রুপি। এটি এখন পর্যন্ত ভারতের সব থেকে বেশি অর্থ উপার্জনকারী ছবি। এই ছবি জম্মু ও কাশ্মীরে জন্ম নেওয়া জাইরা ওয়াসিমকে এনে দেয় জাতীয় পুরস্কার।

 

 

 

 

 

 

 

তাঁর পরের ছবিটিও ছিল আমির খানের সঙ্গে। ‘সিক্রেট সুপারস্টার’ নামের সেই ছবি জাইরা ওয়াসিমকে উপহার দিয়েছিল ফিল্মফেয়ারে সেরা অভিনেত্রীর পুরস্কার। আর গত বছরে মুক্তি পায় ‘দ্য স্কাই ইজ পিংক’ ছবিটি। ছবিতে তাঁকে অনুপ্রেরণাদায়ক বক্তা আয়েশা চৌধুরীর ভূমিকায় দেখা গেছে, যিনি জীবনের একটা বড় সময় দুরারোগ্য ও বিরল পালমোনারি ফাইব্রোসিসে আক্রান্ত ছিলেন। এই রোগে ফুসফুসে ঘা হয় এবং শ্বাস-প্রশ্বাসে অনেক জটিলতা তৈরি হয়। মাত্র ১৯ বছর বয়সে মারা যান আয়েশা চৌধুরী। এই ছবিতে জাইরা ওয়াসিমের মা ও বাবার ভূমিকায় থাকবেন যথাক্রমে প্রিয়াঙ্কা চোপড়া ও ফারহান আখতার।‘দঙ্গল’, ‘সিক্রেট সুপারস্টার’ ও ‘দ্য স্কাই ইজ পিংক’ ছবিতে জাইরার অভিনয় প্রশংসা কুড়িয়েছে। ছবি: ইনস্টাগ্রামআর গত বছর সবচেয়ে বড় সমালোচনার জন্ম দেয় ফেসবুক পেজে জাইরা ওয়াসিমের একটি দীর্ঘ স্ট্যাটাস। সেখানে জাইরা ওয়াসিম বলিউডে তাঁর অভিজ্ঞতার বিষয়ে বিস্তারিত লিখেছেন। আর জানান যে বলিউডে ভালো নেই এই মুসলিম তারকা। এখানে তিনি যা করছেন, তা নাকি তাঁর ধর্মীয় আদর্শ আর মূল্যবোধের সঙ্গে সাংঘর্ষিক। তাই তিনি লিখেছেন, ‘পাঁচ বছর আগে আমি একেবারে নিজের ইচ্ছায় বলিউডে পা রাখি। অবিশ্বাস্য জনপ্রিয়তা পাই। মানুষের মনোযোগের কেন্দ্রবিন্দু হই। রাতারাতি তরুণদের মডেল বনে যাই। কিন্তু আমি এগুলো কিছুই চাইনি। আমি আমার নতুন এসব পরিচয় নিয়ে সুখী নই।’

জাইরা ওয়াসিম আরও লিখেছেন, ‘বলিউড আমাকে দুহাত ভরে দিয়েছে। ভালোবাসা, সমর্থন, জীবনযাপনের পদ্ধতি—সবকিছু। কিন্তু আমি যেভাবে কাজ করেছি, তাতে আমার ধর্মীয় বিশ্বাস ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে, ইসলামের সঙ্গে আমার সম্পর্ক হুমকির মুখে পড়েছে। আল্লাহর সঙ্গে আমার দূরত্ব বেড়েছে। আমার মানসিক শান্তি নষ্ট হয়েছে। আমি আমার জীবন থেকে বরকত হারিয়েছি। আমি ভুলতে বসেছিলাম, পৃথিবীতে আমাদের পাঠানোর উদ্দেশ্য। আর সফলতা সেখানেই যখন যে উদ্দেশ্যে আমাদের পৃথিবীতে পাঠানো হয়েছে, আমরা তা পূরণ করতে সমর্থ হব।’ শেষ বাক্যে জাইরা ওয়াসিম জানিয়েছেন, মনের শান্তি আর ইমানের বিনিময়ে এসব সফলতা, তারকাখ্যাতি, কর্তৃত্ব, সম্পদ কিছুই চান না তিনি।

Development by: webnewsdesign.com