সাক্ষীকে পুলিশের সামনে মারধর, সেই ওসি প্রত্যাহার

বৃহস্পতিবার, ৩০ জানুয়ারি ২০২০ | ২:১০ অপরাহ্ণ

সাক্ষীকে পুলিশের সামনে মারধর, সেই ওসি প্রত্যাহার

পাবনায় পুলিশের সামনেই ধর্ষণ মামলার সাক্ষীকে মারধরের ঘটনায় সেই ওসি খাইরুল ইসলামকে পুলিশ লাইনে প্রত্যাহার করা হয়েছে। তিনি সদর থানার ওসি (তদন্ত) ছিলেন।বুধবার সন্ধ্যায় পাবনার অ্যাডিশনাল এসপি শামীমা আক্তার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

 

 

তিনি জানান, সন্ত্রাসীদের হামলা থেকে সাক্ষীকে বাঁচাতে ব্যর্থ হওয়ায় ও দায়িত্বে অবহেলার অভিযোগে ওসি খাইরুলকে প্রত্যাহার করা হয়েছে। এ ব্যাপারে তদন্ত কমিটি পুলিশ হেডকোয়ার্টারে প্রতিবেদন জমা দিয়েছে। বিভাগীয় তদন্ত শেষে পুলিশ হেডকোয়ার্টার পরবর্তী ব্যবস্থা নেবে।

তিনি আরো জানান, ঘটনার সিসিটিভি ফুটেজ পরীক্ষা, প্রত্যক্ষদর্শী ও ভুক্তভোগীদের সঙ্গে কথা বলে মঙ্গলবার তদন্ত প্রতিবেদন জমা দেয় কমিটি। এখানে দুইটি বিষয় নিয়ে তদন্ত কমিটি কাজ করেছে। তা হলো, মামলার সাক্ষ্য দিতে আসা ব্যক্তিকে ওসি আসামি পক্ষের হাতে তুলে দিয়েছে কি না ও সাক্ষীদের নিরপত্তায় তার গাফিলতি ছিল কি না। তদন্তে সাক্ষীকে আসামি পক্ষের হাতে তুলে দেয়ার প্রমাণ মেলেনি। তবে গাফিলতির বিষয়টি প্রমাণিত হয়েছে।

 

 

 

 

১৪ জানুয়ারি একটি ধর্ষণ মামলার তদন্তের সাক্ষ্যের জন্য আব্দুল আলিম নামে এক যুবককে শহরের গাছপাড়া এলাকায় ডেকে নেন সদর থানার ওসি (তদন্ত) খাইরুল ইসলাম। এ সময় আসামির অনুসারীরা আলিমকে পিটিয়ে আহত করে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে কোনো উদ্যোগ না নিয়েই ঘটনাস্থল থেকে চলে যান খাইরুল। পরে এ ঘটনার সিসিটিভি ফুটেজ ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়লে মুহূর্তেই ভাইরাল হয়।

Development by: webnewsdesign.com